Funeral Insurance

Read in English

ফিউনারেল ইন্সুরেন্স এর কার্যকারিতা :

ফিউনারেল হোম সার্ভিস
মৃতদেহ দেশে নিতে আর্থিক সহায়তা
স্বজনহারা পরিবারের বাৎসরিক ব্যয় বহনে দ্রুততম নিশ্চয়তা

আমেরিকায় কোন পরিবার বা প্রতিষ্ঠানের সদস্যের মৃত্যু হলে ফিউনারেল হোম এবং লাশ দেশে পাঠানোর জন্য প্রয়োজন নূন্যতম ৫ হাজার ডলার। লক্ষ্য করা যায় যে সামাজিক ভাবে সুপরিচিত ব্যক্তির ফিউনারেল সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সম্পন্ন হয়ে থাকে। কাজটি সহজ হয় তার খ্যাতির কল্যানে। অথচ সর্বসাধারণের উপায় কি? এছাড়া পরিবারের ভরণ পোষণ এর দায়িত্ব কে নেয় সানন্দে? উভয় ক্ষেত্রে প্রয়োজন পর্যাপ্ত সঞ্চয় পরিকল্পনা। সকলেরই উচিত নিজ নিজ বাৎসরিক আয় এর সমান পর্যাপ্ত সঞ্চয় ক্যাশ মজুত রাখা। আর্থিক সমস্যার কারণে যেমন ফিউনারেল প্রক্রিয়ায় বিলম্ব অনুচিত, ঠিক তেমনি বাড়ি ভাড়া, বেক্তিগত ঋণ, সন্তানের লেখা-পড়ার খরচ, এবং রোজকার বিবিধ ব্যয় পূরণ করতে প্রয়োজন এমন একটি পরিকল্পনা যা প্রতিদিন এক কাপ চায়ের মূল্য সমপরিমাণ সঞ্চয় করে আপনি পেতে পারেন অতি সুলভে। ফিউনারেল ইন্সুরেন্স এমনই একটি পরিকল্পনা।

নিউইয়র্কের ইন্সুরেন্স কোম্পানি* প্রতিনিধি মোহাম্মদ নাসিরুল্লাহ জানিয়েছেন,

“আকস্মিক যদি কারো বাবা মারা যান, তাহলে ছেলে-মেয়ে নিয়ে অথৈ সাগরে পড়েন মা। অথচ যদি তাদের বাবার একটি লাইফ ইন্সুরেন্স পলিসি থাকতো, তাহলে এই দুঃসময়ে তাদেরকে হাবু-ডুবু খেতে হোত না। তারা বাড়ি ভাড়া বা মর্গেজ দিতে পারতো। কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরা লেখা-পড়া ছেড়ে কাজের ধান্ধায় নামতো না। সেই সাথে নিত্য দিনের জীবন ধারণ তো আছেই।”

ফিউনারেল হোম সার্ভিস এবং মৃতদেহ দেশে পাঠানোর খরচ ন্যুনতম ৫ হাজার। যার যার ধর্ম অনুযায়ি লাশের ব্যাবস্থা উপলক্ষে বিবিধ খরচ ছাড়াও রয়েছে আন্যান্য হিসাব যেমন পরিবারের ভরণ পোষণের খরচ, মৃত বেক্তির অনাদায়ি ঋণ এবং অসিয়ত পুরন। পর্যাপ্ত সঞ্চয় সমস্যার কারণে ফিউনারেল বিলম্ব উচিত নয়। এখন থেকেই ফিউনারেল তহবিল এ সঞ্চয় শুরু করুন অথবা ফিউনারেল ইন্সুরেন্স ক্রয় করুন। ফিউনারেল ইন্সুরেন্স মুলত লাইফ ইন্সুরেন্স যা মেটলাইফ, মাসমিউচুয়াল, এ.আই.জি আমেরিটাস কম্পানি থেকে নিয়ম অনুযায়ী আবেদন এর মাধ্যমে পাওয়া যেতে পারে। প্রতিদিন এক কাপ চায়ের মূল্যের সমপরিমাণ সঞ্চয় করে আপনি পেতে পারেন এই সুবিধা।

মোহাম্মদ নাসিরুল্লাহ তার অভিজ্ঞতার আলোকে বলেছেন,

“বর্তমান অর্থনৈতিক মন্দার সময়ে যতই কষ্ট হোক প্রত্যেক বাবার তার বাৎসরিক আয়ের সমপরিমাণ লাইফ ইন্সুরেন্স থাকা উচিত। ৫০ হাজার ডলারের পলিসি থাকলে মাসে ৫৬ ডলার পে করতে হয়। অবশ্য এই অঙ্কটি নির্ভর করবে ইন্সুরেন্স গ্রহীতার বয়স ও স্বাস্থ্যের উপর।”

মোহাম্মদ নাসিরুল্লাহ লাইফ ইন্সুরেন্স এজেন্ট হিসেবে জীবন বীমা সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সরবরাহে সদাব্যস্ত, যাতে যে কোন পরিবারের সদস্যরা উপার্জনকারী সদস্যের অকাল মৃত্যুর পরও নিজেদেরকে সুরক্ষিত রাখতে পারে। যখন কোন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিটির আকস্মিক মৃত্যু ঘটে,তখন স্বাভাবিকভাবেই পরিবারের সবাই মানসিক ও আর্থিকভাবে এক অপ্রস্তুতকর অবস্থার সম্মুখীন হয়। এ অবস্থায় পরিবারটি এক আর্থিক বিশৃঙ্খলায় পড়ে এবং পরিবারের জীবিত অন্যান্য সদস্যদের আর্থিক ভবিষ্যত হুমকির মুখে পড়ে। এমন ক্ষেত্রে উপার্জনক্ষম ব্যক্তিটির সঠিক জীবন বীমা কাভারেজই পরিবারটির সুরক্ষা হিসেবে কাজ করতে পারে। লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানির এজেন্ট মোহাম্মদ নাসিরুল্লাহর সঙ্গে পরামর্শের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন জীবন বীমা কিভাবে অচিন্তনীয়ভাবে সহজ ও ব্যয়সাধ্য উপায়ে আপনার পরিবারের প্রিয় সদস্যদেরকে সুরক্ষা দান করতে পারে।

মোহাম্মদ নাসিরুল্লাহ বলেন, “নিউ ইয়র্কের বয়স্ক ব্যক্তিদের অনেকেই এখন অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যয়নির্বাহের জন্য ইন্সুরেন্স কাভারেজ চাচ্ছেন। নামমাত্র মূল্যের একটি লাইফ পলিসি তাদের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যয়নির্বাহের জন্য যথেষ্ট। বর্তমান অর্থনীতিতে একটি পরিমিত অন্তেষ্টিক্রিয়ার ব্যয় ৫,০০০ ডলার। ইন্সুরেন্সবিহীন অবস্থায় মৃত্যুর ফলে যে সমস্যা তৈরী হতে পারে তার তুলনায় লাইফ ইন্সুরেন্স প্রিমিয়ামের জন্য অল্প কিছু অর্থ ব্যয় করা বহুগুণে শ্রেয়। একথা সত্যি যে, ডাক্তারি বিদ্যা এখন বহুদূর এগিয়েছে; তাই বলে আমরা এখনও কাছের ও প্রিয় ব্যক্তির মৃত্যুর ভবিষ্যদ্বাণী করতে পারি না।” তিনি বলেন তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে কিভাবে ব্যক্তি বিশেষে কার কেমন ইন্সুরেন্স প্রয়োজন তার দিক নির্দেশনা দিতে পারেন।

In the name of Allah, Most Gracious, Most Merciful

“And those who are taken in death among you and leave wives behind – for their wives is a bequest: maintenance for one year without turning [them] out. But if they leave [of their own accord], then there is no blame upon you for what they do with themselves in an acceptable way. And Allah is Exalted in Might and Wise.” (Sura Bakara 2:240; translation: Sahih international)

“আর যখন তোমাদের মধ্যে যারা মৃত্যুবরণ করবে তখন স্ত্রীদের ঘর থেকে বের না করে এক বছর পর্যন্ত তাদের খরচের ব্যাপারে ওসিয়ত করে যাবে। অতঃপর যদি সে স্ত্রীরা নিজে থেকে বেরিয়ে যায়, তাহলে সে নারী যদি নিজের ব্যাপারে কোন উত্তম ব্যবস্থা করে, তবে তাতে তোমাদের উপর কোন পাপ নেই। আর আল্লাহ হচ্ছেন পরাক্রমশালী বিজ্ঞতা সম্পন্ন।“ [সূরা বাকারা, আয়াত ২৪০]

মুসলিম ফিউনারেল ইনসুরেন্স

জানাযা নামাজ, কাফন, দাফন, কবর, মৃতের অসিয়তপূরণ, অনাদায়ী ঋণ পরিশোধ, নির্ভরশীল পরিবারের ভরণ-পোষণ ইত্যাদি খরচ প্রসঙ্গে ভেবেছেন? পর্যাপ্ত সঞ্চয় এর অভাবে জরুরি দাফন বিলম্বিতহয়। আমেরিকায় একটি সাধারণ ফিউনারেল ব্যয় ৭/১০ হাজার ডলার। মুসলিম ফিউনারেল ইন্সুরেন্স কম সময়ের মধ্যে শরীয়ত সম্মত দাফনের নিশ্চয়তা, এবং মৃত ব্যক্তির অনাদায়ী ঋণ পরিশোধে সহযোগিতা দিয়ে আসছে।

* AIG, AMERITAS, MASSMUTUAL, METLIFE, TRANSAMERICA

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *